সোমবার, ২৭ মার্চ ২০২৩, ০২:১৭ অপরাহ্ন

রোজার আগেই অস্থির ভোগ্যপণ্যের পাইকারি বাজার

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ১১ বার দেখা হয়েছে

রোজার আগেই অস্থিতিশীল হয়ে উঠেছে দেশের বৃহত্তম ভোগ্যপণ্যের পাইকরি বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জ। বেড়েছে ছোলা, মটর ও খেজুরসহ নিত্যপণ্যের দাম। ব্যবসায়ীরা বলছেন, সময়মত এলসি খুলতে না পারায় তৈরি হয়েছে এমন পরিস্থিতি।

দেশের মোট আমদানি-রফতানির ৯৪ শতাংশই হয় চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে। তবে বিশ্ব পরিস্থিতিতে গত অর্থবছরের তুলনায় এবার কমেছে ভোগ্যপণ্যের আমদানি। জুলাই থেকে জানুয়ারি পর্যন্ত প্রথম সাত মাসে ছোলা আমদানি হয়েছে ৪০ হাজার টন, যা গেল অর্থবছরের একই সময়ে আমদানি ছিল এক লাখ ৪২ হাজার ৯৩৭ টন। এবার প্রথম সাত মাসে খেজুর আমদানি হয়েছে একত্রিশ হাজার ৩৮৫ টন, যা গেলো বারের তুলনায় প্রায় পনের হাজার টন কম।

আমদানি কমার প্রভাব পড়েছে দেশের বৃহত্তম পাইকারি বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে। বেড়েছে ছোলা, চিনি, খেজুর, তেল ও ডালসহ ভোগ্যপণ্যের দাম। একমাস আগেও যেখানে মান ভেদে ছোলার দাম ছিল ৭০-৮০ টাকা, এখন তা বেড়ে হয়েছে ৮৫-৯০ টাকা। খেজুরের দামও বেড়েছে প্রায় ৪০ শতাংশ। সরকার চিনির দাম প্রতি কেজি ১০৭ টাকা ঠিক করে দিলেও বিক্রি হচ্ছে ১১০ থেকে ১২০ টাকায়।

চাকতাই খাতুনগঞ্জ আড়তদার সাধারণ ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো: মহিউদ্দিন ও আমদানীকারক আলমগীর পারভেজ বলেন, ডলারের বাড়তি দামের কারণেও বাড়ছে আমদানি ব্যয়। নির্ধারিত সময়ে পণ্য না এলে বাজার আরো অস্থির হওয়ার শঙ্কা তাদের।

রমজানে ভোগ্যপণ্যের বাজার স্থিতিশীল রাখতে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেয়ার দাবি সাধারণ মানুষের।

দয়া করে এই পোষ্টটি আপনার পেজে শেয়ার করুন ...

এ জাতীয় আরো খবর..
All rights reserved © 2023 Jono Songbad | প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত